চাকুরি/বিজ্ঞপ্তি

  • কৃষি ব্যাংকের অফিসার পদে পরীক্ষা শুক্রবার

    বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের পরীক্ষা শুক্রবার সকাল ৯টায় হতে শুরু হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে (https://erecruitment.bb.org.bd) প্রবেশপত্র আপলোড করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এক জরুরি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

  • পুলিশে সার্জেন্ট পদে নিয়োগ

      ঢাকাঃ  বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে সার্জেন্ট (নারী/পুরুষ) পদে জনবল নিয়োগ করা হবে।   আগ্রহীরা ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। বিজ্ঞপ্তি:     সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক, তারিখ: ১০ জানুয়ারি ২০১৭।

  • যুব উন্নয়ন অধিদফতরে ৩৪০ জনের চাকরি

    ঢাকাঃ যুব উন্নয়ন অধিদফতরে ‘ক্যাশিয়ার’ পদে ৩৪০ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: যুব উন্নয়ন অধিদফতর পদের নাম: ক্যাশিয়ার পদসংখ্যা: ৩৪০ জন শিক্ষাগত যোগ্যতা: বাণিজ্যে স্নাতক বেতন: ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা বয়স: ৩১ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে ১৮-৩০ বছর। বিশেষ ক্ষেত্রে ৩২ বছর। আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট www.dyd.gov.bd এর … বিস্তারিত »

  • রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

    ঢাকাঃ রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ৫টি পদে ৩৩১ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। পদের নাম: কম্পিউটার অপারেটর পদসংখ্যা: ২৯ জন শিক্ষাগত যোগ্যতা: দ্বিতীয় শ্রেণি/সমমানের সিজিপিএ-তে স্নাতক/সমমান অভিজ্ঞতা: কম্পিউটার বিষয়ে ১ বছরের ডিপ্লোমাসহ ২ বছরের অভিজ্ঞতা বেতন: ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা পদের নাম: সুপারভাইজার পদসংখ্যা: ১১৪ জন শিক্ষাগত যোগ্যতা: দ্বিতীয় শ্রেণি/সমমানের … বিস্তারিত »

  • পরমাণু শক্তি কমিশনে চাকরি

    বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনে ‘ইঞ্জিনিয়ার’ এবং ‘মেডিকেল অফিসার’ পদে ২৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। পদের নাম: ইঞ্জিনিয়ার পদসংখ্যা: ১৫ জন বণ্টন: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-৪, ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং-৪, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-৪, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-১, ম্যাটেরিয়াল অ্যান্ড মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-১টি, ওয়াটার রিসোর্স ইঞ্জিনিয়ারিং-১। শিক্ষাগত যোগ্যতা: বি.এস.সি ইঞ্জিনিয়ারিং। প্রথম বিভাগ/শ্রেণি বেতন: … বিস্তারিত »

  • ইন্টারভিউ

    াল পারফরমেন্সের নেট রেজাল্ট ভাই। তুমি পাঁচ বছরেই অ্যাচিভ করবে? এটা কনফিডেন্স নয়। ওভার কনফিডেন্স।‘ বলা বাহুল্য, ওর ভাগ্যে শিকে ছেঁড়েনি।

    আরও একটি গোলকধাঁধাঁ মাখা প্রশ্ন—তোমায় আমরা নেব কেন বল? যতই ‘এক চান্সে ইন্টারভিউ’ গোছের বই পড়া থাক, গ্রুমিং ক্লাস করা থাক, এর উত্তরে প্রশ্নকর্তাকে খুশি করা যায় না। যারা পড়াশোনা শেষ করে চাকরির জগতে পা রাখতে চলেছেন, তাদের কাছে মোদ্দা কথায় এই প্রশ্নের জবাব হল এই, ‘অনেক জায়গাতে দিচ্ছি, তাই এখানেও দিয়ে গেলাম। লেগে গেলে লেগে গেল।’ কিন্তু এ কথা তো ইন্টারভিউ প্যানেলের সামনে প্রকাশ্যে বলা যায় না। ওই কোম্পানির নামে সুখ্যাতি করতে হয়। বলতে হয়, ‘আমার ক্যারিয়ারটা এমন সোনার সুযোগ পেলে বর্তে যাবে।’ বুঝিয়ে দিতে হয়, এই মুহূর্তে আপনারাই আমার জীবনের প্রাণভোমরা, আমার ক্যারিয়ারের সোনা রুপোর জিয়নকাঠি। এই দুনিয়ায় তেল দিতে ভালবাসেন এমন মানুষের সঙ্গে তেল খেতে ভালবাসেন এমন মানুষও আছেন। কিন্তু মুশকিলটা হল, প্যানেলে এমন একজন না একজন ঠিকই থাকেন, যিনি বুঝে যান, একেবারে ফাঁকা আওয়াজ। তখন এমন মন্তব্য আসতেই পারে, ‘বেশ, আমাদের কোম্পানির উপরে এতই যখন প্রেম তা হলে চলে আসুন। কিন্তু আপনার যোগ্যতা যা, তার অর্ধেক বেতন পাবেন।’ এর উত্তরে ‘হ্যাঁ’ বলা যায় না। আবার ‘কেন স্যার’ বললেও বিপদ। শুনতে হবে, ‘ও! তা হলে বলুন শুধু টাকার জন্যই আপনি এই সংস্থায় চাকরি করতে চান। ভাল কেরিয়ার-টেরিয়ার বাজে কথা। ঠিক কি না?’

    ইন্টারভিউ এমন একটি জায়গা যেখানে অনেকের মাঝখানে থেকেও আমাদের মধ্যে অনেকেই নিজেই নিজের হৃদস্পন্দন শুনতে পাই। বুকের মধ্যে ডিজে মিউজিকের বিট বাজে। বাজে করুণ সুরে। কয়েকটি ব্যাপার চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে খুব চলে। সেগুলো হল, বডি ল্যাঙ্গোয়েজটা ঠিক রাখতে হবে। সোজা হয়ে বসতে হবে। ঘরে ঢুকেই সবার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করতে হবে। হাত মেলানোর সময় নিজের হাতের তালু যেন ঘামে ভিজে না থাকে, হাত যেন কিছুতেই না কাঁপে। যাই জিজ্ঞেস করা হোক না কেন, চোখে চোখ রেখে উত্তর দিতে হবে। এগুলোর প্রতিটার জন্যই নাকি নম্বর বরাদ্দ থাকে। আর চোখে চোখ রাখা অর্থাৎ আই কনট্যাক্টের ব্যাপারটা নাকি সবচেয়ে ভাইটাল। আমার এক বন্ধুর কথা বলি। দিবাকর। কলেজের বন্ধু। আবার একই পাড়ারও। গ্র্যাজুয়েশন শেষ করার পর দুজনেই এক সঙ্গে ফ্যা ফ্যা করে ঘুরে বেড়িয়েছিলাম প্রায় বছর খানেক। সরকারি চাকরির প্রস্তুতির মুরোদ এবং ধৈর্য দুটোর একটাও ছিল না। অগত্যা বেসরকারি চাকরির জন্যই প্রাণপাত করছিলাম। প্রাণপাত বলতে রেলস্টেশন আর পাড়ার রাস্তার মোড় থেকে কেনা ইন্টারভিউয়ের অ-আ-ক-খ, হাই ফাই ইন্টারভিউ, বডি ল্যাঙ্গোয়েজের সহজপাঠ, ইন্টারভিউয়ে বাজিমাত—এ ধরনের কিছু বই কিনে পড়ছিলাম আর কি। বইগুলোর দাড়ি কমা সেমিকোলন অবধি মুখস্থ হয়ে গিয়েছিল। গোটাদশেক ইন্টারভিউয়ের পরে একটা মোবাইল কোম্পানির কল সেন্টারে আমার চাকরি হয়ে যায়। বকবক করে পোস্টপেড কানেকশান বেচার কাজ। কিন্তু ছোটদের ন্যাপি বিক্রির সেলসম্যান, বড়দের হ্যাপি রাখা তেলের এজেন্ট, জুতোর পালিশ, বক্ষ মালিশের সাপ্লায়ার, ক্যুরিয়র কোম্পানির ডেলিভারি বয়, এটিএম গার্ড—বছরদেড়েকে সত্তর-পঁচাত্তরটা কোম্পানিতে ইন্টারভিউ দিয়েও দিবাকর কিছু সুবিধা করে উঠতে পারেনি। বলত, ‘কিছু একটার অভাব আছে ভাই।’ জিজ্ঞেস করেছিলাম, ‘কিসের অভাব?’ বলেছিল, ‘জানা নেই। এক্স ফ্যাক্টর। ওই জন্যই হচ্ছে না। এত ভাল বডি ল্যাঙ্গোয়েজ মেইনটেইন করি, তাও হল না।’

    তবে দিবাকরের ভাগ্যের শিকে ছেঁড়ার নেপথ্যেও সেই বডি ল্যাঙ্গোয়েজই। আরও ভাল করে বলতে গেলে বডি ল্যাঙ্গোয়েজের আই কনট্যাক্টে। একটা শেয়ার ব্রোকার কোম্পানির এজেন্ট নেওয়ার জন্য ইন্টারভিউ চলছিল। দিবাকরের জীবনের শেষ ইন্টারভিউ। মোটা দাগে বলা যায় দালালির চাকরি। দিবাকরের থেকে পরে জেনেছি, ওর সামনেই বসে ছিলেন ওই কোম্পানির এইচআর দফতরের এক যুবতী। ‘বছর তেইশ চব্বিশ হবে, হেব্বি দেখতে, দেখে চোখ ফেরানো যায় না মাইরি’, প্রথম দিকে দিবাকর বলেছিল এমনটাই। পাঁচ জনের ইন্টারভিউ প্যানেলের মধ্যে শুধু ওই যুবতীই প্রশ্ন করছিলেন আর দিবাকর উত্তর দিচ্ছিল। একটার পর একটা প্রশ্ন। চোখা চোখা। প্রশ্নবানে ঘাবড়ে গিয়েই হোক বা এইচআর-এর রূপ দেখে চোখে ধাঁধাঁ লেগে গিয়েই হোক, দিবাকর নাকি শুরু থেকেই চোখের পাতা ফেলতে পারেনি। ও অবশ্য সাফাই দেয়, ‘আই কনট্যাক্টের সময় চোখের পাতা ফেলিলে নম্বর কাটা যাইতে পারে’, একটা বইতে নাকি এমনটা লেখা ছিল। শেষের দিকে আর না পেরে ও এক চোখ বোজে।

    সেদিন বিকেলে দিবাকর একটি এসএমএস পায়। ‘আমায় দেখে চোখ মারলে ! দুষ্টু ! ইতি তোমার এইচ আর। মুয়া মুয়া।’

    সেই ‘হেব্বি দেখতে’ এইচআর-এর মহিলা আজ দিবাকরের বেটার হাফ।

    দিবাকর অবশ্য বলে, ‘হাফ না ভাই, ওই ফুল।’ বিয়ের পর অবশ্য চাকরির চেষ্টা ছেড়ে দিয়েছে আমার বন্ধু। বৌয়ের পয়সাতেই সংসার চলে। আর দিবাকর বলে, ‘শেয়ারের দালাল আর হওয়া হল না রে আমার। তবে সেরা শেয়ারটা পেয়ে গিয়েছি !’

    -->

    ‘হোয়াট ইজ দ্য ওয়েট অফ দ্য মুন?’ একটা ঠোক্কর লেগে যাওয়া মুখের আসাদুজ্জামান। আর স্যুট-বুট পরা হু-হোয়াট-হোয়্যার-হোয়েন কর্পোরেট হিংস্রতার মধ্যে এক বিপন্ন মানুষ। জন অরণ্য। ইন্টারভিউ। পাঁচ অক্ষরের এই শব্দটার মধ্যে লেপ্টে থাকে কত আশা-আকাঙ্খা-অভিমান। একশ মাইল দৌড়ে আসার পরে এক শেষ রেফারির বাঁশি। পতাকাটা সবুজ হলে সব পেয়েছির দেশ, আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে। … বিস্তারিত »

  • কৃষি গবেষণা কাউন্সিলে চাকরি

    স্বাধীনবাংলা২৪ দট কম ঢাকাঃ বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের রাজস্ব খাতভুক্ত শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। আগ্রহীরা ৯ জানুয়ারি ২০১৭ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। পূর্ণাঙ্গ বিজ্ঞপ্তি:

  • কর কমিশনারের কার্যালয়ে ৭টি পদে ১৬ জনকে নিয়োগ

    স্বাধীনবাংলা ২৪ ডট কম ঢাকাঃ কর কমিশনারের কার্যালয়ে ৭টি পদে ১৬ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: কর কমিশনারের কার্যালয়, কর অঞ্চল-১৫, ঢাকা আবেদনপত্র সংগ্রহ: আগ্রহীরা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট www.taxeszone15.com থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। আবেদনের ঠিকানা: কর কমিশনার, কর অঞ্চল-১৫, রিজ আহম্মেদ স্কয়ার, ৮ম তলা, ৫০/১, নয়াপল্টন, ভিআইপি … বিস্তারিত »