টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে তিস্তার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

নীলফামারী: বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে তিস্তা নদীর পানি। গত ২৪ ঘণ্টায় নীলফামারীতে ১৮৬ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টি আর উজানের ঢলে শুক্রবার সকাল থেকে পানি বাড়তে থাকে। এতে তিস্তার আশপাশের এলাকা ও নীলফামারী, লালমনিরহাটের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

নীলফামারী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টি আর উজানের থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে পানি বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

তিস্তার পাশাপাশি বুড়ি তিস্তা, কুমলাই, দেওনাই, চুড়ালকাটা ও নাউতরা নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে নদীর দুই পাশে বসবাসরত শত শত পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টের তিস্তা ব্যারাজে নদীর পানি বিপদসীমার ২ সেন্টিমিটার নিচ (বিপদসীমা ৫২ দশমিক ৪০ মিটার) দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। বিকেল ৩টায় বিপদসীমার ৪ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

পাউবোর বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও পূর্বাভাস কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, গত ৩ দিনে বৃষ্টি হয়েছে ৪৫৪ মিলিমিটার। গত বুধবার ১৫৮ মিলিমিটার, বৃহস্পতিবার ১৬৪ মিলিমিটার ও শুক্রবার ১৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

Loading...

আরো খবর »