খোকসা কৃষি অফিসের আয়জনে ফলদ ও বৃক্ষমেলা

Feature Image

খোকসা:  স্বাস্থ্য, পুষ্টি অর্থ্ চাই, দেশি ফলের গাছ লাগাই এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে সরাদেশের ন্যায় খোকসা উপজেলাতে ফলদ বৃক্ষমেলার অনুষবঠিত হয়। খোকসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ সেলিনা বানু এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উপজেলা কৃষি অফিসার বিষ্ণ পদ সাহা। তিনি বলেন বৃক্ষ মানুষের চরম বন্ধু, পৃথিবীর ভারসম্য রক্ষায় বৃক্ষর কোন বিকল্প নাই এবং পৃথিবী একমাত্র বৃক্ষই নিজের খাবার নিজে তৈরী করতে পারে। বৃক্ষের মাধ্যমে আমরা যেই অক্সিজেন পাই তা দিয়ে আমাদের জীবন ধারণ করতে সক্ষম হই, নিজের জীবন বাঁচানো জন্য হলেও আমাদেরকে বৃক্ষ রোপন করতে হবে এবং তার পরিচর্যা করতে হবে।

 

শব্দ দূষনের কারণে মানুষের অনেক রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। আমাদের চারিদিকে বৃক্ষ থাকার কারণে ৮০-৯০% শব্দ দূষণ শোষন করে নিচ্ছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আমার শব্দ দূষণ থেকে অনেকটাই রক্ষা পাচ্ছি। বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের ভিশন হলো বাংলাদেশের ২৫% এলাকাকে বৃক্ষের আওতায় আনতে হবে। বর্তমান সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করার আগে বাংলাদেশের ৯% এলাকা বনাঞ্চলের আওতায় ছিলে বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে বৃক্ষ রোপন বৃদ্ধি হতে থাকে বর্তমানে বাংলাদেশের ১৬% এলাকা বনাঞ্চলে উন্নিত হয়েছে। বাঁকী ৯% যদি আমরা দেশকে ভালবেসে আগ্রহের সাথে নিজ দায়িত্বে অন্তত ১টি করে বৃক্ষ রোপন করি তবে দেখা যাবে আমরা অতি দূরত আমাদের লক্ষে পৌছাইতে পারব।

প্রধান অতিথির বক্তবে উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ এর সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান বলেন, আপনারা যারযার স্থান থেকে সঠিক ভাবে নিজ দায়িত্বে বৃক্ষ রোপন করবেন, বৃক্ষই আমাদের জীবন রক্ষার প্রধান হাতিয়ার। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হুদা বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু নিজেও বৃক্ষ রোপন করছেন এবং অন্যদেরকে বৃক্ষ রোপন করতে উৎসাহ প্রদান করছেন। বঙ্গবন্ধুর হাতে লাগানো একটি কদম গাছ গোপালগঞ্জে এখন জন মানুষের জন্য ছায়া দিয়ে যাচ্ছে। আমরা আমাদের জীবন বাঁচানো জন্য প্রতিনিয়ত যেই হোমিও, এলোপ্যাথিক ও হেকিমি ঔষধ সেবন করি তা এই গাছ থেকেই তৈরী হয়ে থাকে।তিনি আরো বলেন একটি শিশু জন্ম গ্রহণ করার পর যদি তার নামে গাছ লাগানে হয় তবেই তার জীবন চলার যাবতীয় ব্যায়ভার এই গাছ থেকে গ্রহণ করা সম্ভব। পৌরমেয়র জনা তারিকুল ইসলাম বলেন ২৫% বনাঞ্চল তৈরীর ক্ষেত্রে আমাদের আমাদেরকে অগ্রনী ভূমিকা পালন করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ সেলিনা বানু বলেন, আমাদের এই বৃক্ষ মেলায় যেই স্টল তৈরী হয়েছে সেখান থেকে উপস্থিত সবাই কমপক্ষে ১টি করে গাছ ক্রয় করে নিয়ে রোপন করবেন। যাতে করে আমাদের লক্ষমাত্রা অর্জন করতে পারি। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রাজ্জাক , আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সাত্তার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার কামরুজ্জামান সোহেল প্রমূখ।

Loading...

আরো খবর »