বিকেলে গ্রেফতার, রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি,স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: জেলার সরাইলে গ্রেফতারের পর পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মামুন মিয়া (৩৩) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার শাহ্জাদাপুর ইউনিয়নের দেওড়া গ্রামে তন্তর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মামুন উপজেলার কুট্টাপাড়া গ্রামে শফিউদ্দিনের ছেলে।

পুলিশের দাবি, মামুন চিহ্নিত ডাকাত। তার বিরুদ্ধে সরাইল থানায় দুইটি ডাকাতিসহ চারটি মামলা রয়েছে।

তবে নিহত মামুনের স্ত্রী তানিয়া আক্তার দাবি করেছেন, তার স্বামীর বিরুদ্ধে কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগ নেই।

সরাইল থানা পুলিশের ওসি রূপক কুমার সাহা জানান, বিকাল ৩টার দিকে জেলার নবীনগর উপজেলা থেকে মামুনকে গ্রেফতার করে সরাইল থানায় আনা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি দা ও দুইটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

পরে তার দেয়া তথ্য মতে রাতে সরাইল উপজেলার দেওড়া গ্রামে অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায় পুলিশ।

পথিমথ্যে তন্তর এলাকায় মামুনের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এসময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মামুনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওসি আরও জানান, ঘটনার পরপরই মামুনের সহযোগীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি।

তবে ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, দুই রাউন্ড গুলি, ৮ রাউন্ড গুলির খোসা ও একটি রামদা এবং একটি বল্লম উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে নবীনগর থানা ওসি আসলাম সিকদার বৃহস্পতিবার সকালে জানান, মামুনকে মঙ্গলবার গ্রেফতার করে নবীনগর থানা পুলিশ। পরে শোন এ্যারেস্ট দেখিয়ে নিয়ে যায় সরাইল থানা পুলিশ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »