কৃষ্ণাঙ্গ যুবকের প্রেমে ধনকুবের বাবার কোটি টাকার সম্পত্তি ছাড়লেন ইনি

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : রুপোলি পর্দায় এমন ঘটনা ঘটেই থাকে। তবে বাস্তব ভালবাসার অর্থ একটু কমই বোঝে। জীবদ্দশায় প্রেমের ফাঁদে একবার না একবার প্রায় সকলেই পড়ে থাকেন। অনেকে আবার একাধিকবার পড়েন। কিন্তু ভালবাসার টানে সবকিছু ছাড়তে ক’জন পারেন? পারেন। খুব বেশি সংখ্যক না হলেও অ্যাঞ্জেলিন ফ্রান্সিস খুয়েরের মতো সেই বিরল শ্রেণির প্রতিনিধি। এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে ভালবেসে বাবার কোটি কোটি টাকার সম্পত্তির অধিকার হেলায় ছেড়ে দিয়েছেন ৩৪ বছরের এই মহিলা।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময়ই ক্যারিবিয়ান বংশোদ্ভুত বিজ্ঞানী জেডিডাহ ফ্রান্সিসের প্রেমে পড়েন অ্যাঞ্জেলিন। তখনই ঠিক করেন বিয়ে করবেন দু’জনে। কিন্তু মেয়ের এই সম্পর্কে ঘোর আপত্তি ছিল খু কে পেংয়ের। যিনি মালয়েশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের একজন। এমনকী, ফোর্বস ম্যাগাজিনের বিচারে মালয়েশিয়ার সেরা ৫০ জন ধনকুবেরদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

অ্যাঞ্জেলিনা খুয়েরের চতুর্থ সন্তান। বাবার কত সম্পত্তি রয়েছে, কখনও খোঁজও নেননি তিনি। শুধু ভালবাসার চাহিদা ছিল তাঁর। যা পূরণ হয়েছে জেডিডাহর সঙ্গে দেখা হওয়ার পর। তাই কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি মাথাতে না এনে মনের মানুষের সঙ্গে ঘর বেঁধেছেন এই ধন্যি মেয়ে। আর বিয়ের পর ধীরে ধীরে গড়ে তোলেন নিজের কেরিয়ার। এখন তিনি সফল ফ্যাশন ডিজাইনার। হ্যাঁ, বাবার মতো প্রচুর অর্থ হয়তো নেই। তবে শান্তি আছে। আর আছে একটি ইচ্ছে। কোনওদিন যদি বাবা তাঁর ভালবাসাকে আপন করে নেন। আর আর্শীবাদটুকুই উপহার হিসেবে দেন।

 

আরো খবর »